মাকে ভরণপোষণ না দেওয়ায় স্ত্রীসহ সরকারি চাকরিজীবী ছেলে গ্রেপ্তার

ঝিনাইদহে মায়ের ভরণপোষণ না দেওয়ায় সরকারি চাকরিজীবী ছেলে মো. সাইফুল্লাহ (৪৪) ও তার স্ত্রী রুমাকে (৩০) গ্রে''প্তার করেছে পু'লিশ। বুধবার (২৭ অক্টোবর) রাতে শহরের ব্যাপারীপাড়া থেকে তাদের গ্রে''প্তার করা হয়। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রা'প্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহা'ম্ম'দ সোহেল রানা বি'ষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গ্রে''প্তারকৃত মো. সাইফুল্লাহ ব্যাপারীপাড়া এলাকার মর'হু’ম বীর মুক্তিযো'দ্ধা শহিদুল্লাহর ছেলে ও ঝিনাইদহ প্রাইমা'রি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের ইন্সট্রাক্টর।

ভুক্তভোগী জহুরা খাতুন জানান, তার শরীর খুব খারাপ। হার্টে ব্লক। ছেলেকে বলার পরও ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায় না। ছেলে ও পুত্রবধূ তাকে ঠিকমতো খেতে দেয় না। কিছু বললে তারা তাকে মা'রে। মা'মলার এজাহার থেকে জানা যায়, জহুরা খাতুনকে তার ছেলে সাইফুল্লাহ ও পুত্রবধূ রুমা বিভিন্ন সময় শারীরিকভাবে নি'র্যাতন করে আসছিলেন। ভরণপোষণ দিতেন না, খেতেও দিতেন না। এসব অ'ভিযোগে বুধবার দুপুরে ছেলে ও পুত্রবধূর নামে থানায় মা'মলা করেন জহুরা খাতুন।

এবি'ষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানা পু'লিশের ভারপ্রা'প্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহা'ম্ম'দ সোহেল রানা গণমাধ্যমকে জানান, ঝিনাইদহ প্রাইমা'রি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের ইন্সট্রাক্টর সাইফুল্লাহ তার মা জহুরা খাতুনের ভরণপোষণ দেন না দীর্ঘদিন। কিছু বললে মা'রধর ও নি'র্যাতনের হু’মকি দেন। এ ঘটনায় মা জহুরা খাতুন গত ১৮ অক্টোবর ঝিনাইদহ সদর থানায় অ'ভিযোগ দায়ের করেন। পু'লিশ অ'ভিযোগের বি'ষয়টি আ'দালতে পাঠালে আ'দালত মা'মলা নেওয়ার নির্দেশ দেন। আ'দালতের নির্দেশে বুধবার থানায় মা'মলা হলে রাতে অ'ভিযুক্ত ছেলে সাইফুল্লাহ ও তার স্ত্রী রুমা খাতুনকে গ্রে''প্তার করা হয়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*