সংসার করবে কেউ বিশ্বাস করেননি, সেই মোশাররফের আজ ১৮ বছরের সংসার

দেখতে দেখতে পার হয়ে গেল অ'ভিনেতা মোশাররফ করিম ও রোবেনা রেজা জুঁইয়ের সংসার জীবনের ১৮ টি বছর। দীর্ঘ চার বছর প্রেমের পর ২০০৪ সালের আজকের এই দিনে জুঁইকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন জনপ্রিয় এ অ'ভিনেতা। সে সময় মোশাররফ তার বন্ধুর স'ঙ্গে একটা কোচিং সেন্টার পরিচালনা করতেন ও পড়াতেন।

তখন জুঁই পড়েন দশম শ্রেণিতে । প্রি-টেস্ট পরীক্ষার আগে অথবা পরে আমি সেই কোচিং সেন্টারে ভর্তি হয়েছিলেন জুঁই। মোশাররফ করিমের কাছে বাংলা সাহিত্য এবং ইংরেজি গ্রামা'র পড়তেন। এরপর এইচএসসি এল। তখনও ওই কোচিং সেন্টারেই ভর্তি হলেন। মজার বি'ষয় হল এইচএসসি শেষ করে জুঁইও সেখানে পড়াতে শুরু করেন। মোশাররফ করিমও জুঁইয়ের কাছে আসার গল্পটা এমনই। যা সময় পেলেই অকপটে জুঁই। বলেন মোশাররফ করিমও।

তবে সেই সময়কার মোশাররফের এখনকার মোশাররফের মতো জনপ্রিয়তা ছিল না। সেই সময় জুঁইয়ের স'ঙ্গে প্রথম পরিচয় হয় তার। তারপর প্রেম, প্রেম থেকে বিয়ে। শিক্ষক হিসেবে যোগ দেয়ার এক বছর পর থেকে মূলত ভালো লাগার আ'দান-প্রদান শুরু হয় তাদের। তবে বিয়েটা সহজ ছিল না। বি'ষয়টি নিয়ে জুঁই জানান, আমা'দের সম্পর্ক বিয়ে পর্যন্ত গড়াতে কিছু সমস্যার মুখোমুখি 'হতে হয়েছে। ওর পরিবার থেকে তেমন সমস্যা ছিল না। কারণ মোশাররফ এমনিতেই উদাসীন মানুষ। সে সংসার করবে এটা তার পরিবার ভাবতেই পারেনি!

জুঁই আরো জানান, যখন সেই ছেলে মেয়ে পছন্দ করেছে তখন পরিবার থেকে আর বাধা আসেনি। ওদিকে আমি তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছি। আমা'র পরিবারের সু'প্ত ইচ্ছা ছিল- পড়াশোনা শেষ করে উচ্চশিক্ষার জন্য দেশের বাইরে পাঠাবে। কিন্তু তৃতীয় বর্ষে পড়াকালীন বিয়ের সি'দ্ধান্ত নিলাম। আমা'র এই সি'দ্ধান্ত পরিবারকে খুব 'হতাশ করেছিল। এছাড়া কালচারাল কিছু গ্যাপ ছিল। আমা'র বাড়ি জামালপুর। মোশাররফ করিমের বাড়ি বরিশাল।

সবকিছু মিলিয়ে প্রতিবন্ধকতা ছিল। বর্তমানে শোভিজের বেশ সুখী দম্পতি তারা। বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে মোশাররফ করিম-জুঁই বেরিয়ে পড়েন ঘুরতে। নতুন কোনো জায়গায় পালন করেন বিবাহবার্ষিকী। এবার অবশ্য ঢাকাতেই রয়েছেন এই দম্পতি। সম্প্রতি তাদের বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে রোবেনা রেজা জুঁই ফে'সবুকে দুটি ছবি পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে তাঁদের বিশেষ দিন পালনের আয়োজন। ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, এমনি করেই যায় যদি দিন যাক না.. শুভ বিবাহ বার্ষিকী মোশাররফ করিম, দেড় যুগ পূর্তি জন্য অ'ভিনন্দন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*